বিচারকের বিরুদ্ধে নারীর ‘স্পর্শকাতর’ জায়গায় হাত দেওয়ার অভিযোগ


admin প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ১৩, ২০২১, ৪:১১ অপরাহ্ন / ০ Views
বিচারকের বিরুদ্ধে নারীর ‘স্পর্শকাতর’  জায়গায় হাত দেওয়ার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্কঃ খাস কামরায় এক নারী বিচারপ্রার্থীর সঙ্গে অশালীন আচরণের অভিযোগ উঠেছে ঢাকার সিএমএম আদালতের এক বিচারকের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিচারক কনক বড়ুয়ার বিরুদ্ধে লিখিত আকারে মূখ্য মহানগর হাকিম, জেলাজজ ও আইনজীবী সমিতিতে অভিযোগ দিয়েছেন ওই নারী।

ভুক্তভোগী নারীর আইনজীবী জানান, তারা বিচারকের এমন আচরণের বিষয়টি সিএমএমকে জানালে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী ওই নারীর লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, ‘সাক্ষীর জন্য নির্ধারিত দিন থাকায় তিনি আদালতে হাজির হন। এসময় সাক্ষীর জন্য বিচারকের খাস কামরায় গেলে বিচারক কনক বড়ুয়া ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ করে দেন। বিচারক বলেন, মামলাটি মিথ্যা সে কারণে কোন আদালতে মামলাটি চলবে না। অভিযোগে বলা হয়, এরপর বিচারক কনক বড়ুয়া জোর করে বোরকা খুলে ফেলে এবং শরীরের স্পর্শকাতর জায়গা হাত দিতে থাকে। এর প্রতিবাদ করলে তখন বিচারক কনক বড়ুয়া বলেন, তার সঙ্গে বন্ধুত্বসুলভ আচরণ না করলে তাকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয়া হবে। এরপর জোর করে খাস কামরা থেকে বেরিয়ে আসে ভুক্তভোগী ওই নারী।’

একজন বিচারকের এমন কাণ্ডের প্রতিকার চেয়ে এরইমধ্যে লিখিত আবেদন করেছেন ওই নারী। তার আইনজীবী জানান, তারাও বিষয়টি লিখিত আকারে মূখ্য মহানগর হাকিমসহ সংশ্লিষ্টদের জানিয়েছেন। তিনি এ বিষয়টি সুরাহার আশ্বাস দিয়েছেন।

বিচারক কনক বড়ুয়ার বিরুদ্ধে এর আগেও শ্লীলতাহানীর অভিযোগ উঠেছিলো বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।